সকাল ৬:৫৯,   মঙ্গলবার,   ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং,   ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ,   ১৬ই মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী
 

ঠাকুরগাঁওয়ে নিহতদের পরিবারের মামলা নিতে পুলিশের গড়িমসি

অনলাইন ডেস্ক
ঠাকুরগাঁওয়ে বিজিবি-গ্রামবাসী সংঘর্ষে নিহতদের পরিবারের মামলা নিতে পুলিশের বিরুদ্ধে গড়িমসির অভিযোগ উঠেছে। তবে থানায় অভিযোগপত্র জমা না দেয়ার দাবি করছেন থানার ওসি।

এদিকে, স্থানীয়দের বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়েরের পর বিজিবির টহল তৎপরতা বৃদ্ধিতে আতঙ্ক বাড়ছে বহরমপুরে। এ অবস্থায় ভয়ে এলাকা ছাড়ছেন অনেকে। বিজিবির সঙ্গে এলাকাবাসীর সংঘর্ষের পরই ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার বহরমপুরজুড়ে শুরু হয়েছে আতঙ্ক।

স্থানীয়দের দাবি, বিজিবির পক্ষ থেকে দুটি মামলায় ২২ জনের নামসহ অজ্ঞাত আড়াইশ জনকে আসামি করায় এখন গ্রেপ্তার আতঙ্কে রয়েছেন বাসিন্দারা।

বাসাবাড়িতে থাকতে ভয় পাচ্ছেন পুরুষরা। গ্রেপ্তার এড়াতে অনেকেই এলাকা ছাড়তে শুরু করেছেন। এরমধ্যেই শনিবার সকালে বহরমপুরে বিজিবির আকস্মিক টহল তৎপরতায় শঙ্কা আরো বেড়েছে এলাকাবাসীর।

এলাকাবাসীরা বলছেন, আতঙ্কে আমরা ঘরে থাকতে পারছি না। আমরা নাগরিক অধিকার নিয়ে বাঁচার মতো বাঁচতে চাই। এবং এই নির্মম হত্যার সুষ্ঠু বিচার চাই। তাদের অভিযোগ, নিহতদের স্বজনদের পক্ষ থেকে মামলা করতে চাইলেও তা নিতে টালবাহানা করছে পুলিশ।

গড়িমসির অভিযোগ অস্বীকার করে ঠাকুরগাঁও হরিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিরুজ্জামান উল্টো দোষ চাপালেন স্থানীয়দের বিরুদ্ধে। তিনি বলেন, তারা কি থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে। তদন্ত কমিটি পরিদর্শনের পর বিষয়টি দেখা যাবে।

শনিবার থেকে জেলা প্রশাসনের ৭ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত টিম সরেজমিনে গিয়ে কাজ শুরু করেছেন। আগামী দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গরু চোরাচালানের অভিযোগে গত মঙ্গলবার বহরমপুর গ্রামবাসীর গরু জব্দ করার সময় এলাকাবাসীর সঙ্গে বিজিবির সংঘর্ষ হয়। এ সময়, বিজিবি এলোপাতাড়ি গুলি চালালে তিনজন নিহত হন।


আবহাওয়া

সিলেট
26°

অ্যাপস

সামাজিক নেটওয়ার্ক

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি