সকাল ৬:৫৪,   মঙ্গলবার,   ২৩শে জুলাই, ২০১৯ ইং,   ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ,   ১৮ই জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী
 

পরিবহন ধর্মঘটে অচল সিলেট, ভোগান্তিতে যাত্রীরা

নিউজ ডেস্ক:
সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মো. ওয়াসিম আব্বাসকে বাস থেকে ফেলে হত্যার সঙ্গে জড়িত বাসচালক জুয়েল আহমদ ও সহকারী মাসুক আলীর বিরুদ্ধের দায়ের করা মামলার ধারা পরিবর্তনসহ ৭ দফা দাবিতে সিলেটে কর্মবিরতি পালন করছে সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন।

সোমবার সকাল থেকে ধর্মঘট পালন করছেন তারা। এই কর্মবিরতি চলবে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। ধর্মঘটের কারণে সকাল থেকে দূরপাল্লার কোনো রুটে বাস ছেড়ে যায়নি। এতে চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছেন সাধারণ যাত্রীরা। তবে প্রাইভেট গাড়ি ও অ্যাম্বুলেন্স ধর্মঘটের আওতামুক্ত রয়েছে।

ধর্মঘটের কারণে সকাল থেকে সিলেট নগরে চলাচলের ক্ষেত্রে একমাত্র বাহন হিসেবে রিকশার আধিক্য দেখা যাচ্ছে। তাছাড়া মোটরসাইকেল ও প্রাইভেট গাড়িও চলাচল করতে দেখা যায়। তবে কোনো অটোরিকশা চলাচল করছে না।

এর আগে শনিবার (২৭ এপ্রিল) সংবাদ সম্মেলন করে শেরপুরে দুর্ঘটনায় সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিকৃবি) ছাত্র ওয়াসিম নিহতের ঘটনায় মৌলভীবাজার থানায় দায়ের করা হত্যা মামলার ধারা পরিবর্তনসহ ৭টি দাবি তুলে ধরেন তারা।

শ্রমিকদের দাবিগুলো হলো- ২৩ মার্চ মৌলভীবাজার থানায় দুর্ঘটনা মামলা নং-২২ (৩)১৯ থেকে দণ্ডবিধি ৩০২ এর স্থলে ৩০৪ ধারা লাগাতে হবে, সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ এর ১০৫ ধারায় জরিমানার পরিমাণ ৫ লাখ টাকার পরিবর্তে ৫০ হাজার টাকা করতে হবে, এই আইনে ৮৪, ৯৮ ও ১০৫ ধারাকে জামিনযোগ্য করতে হবে, এই আইনের ৮৪ ও ৯৮ পৃথক ধারা দুটিতে জরিমানা ৩ লাখের স্থলে ৩০ হাজার করে করা, জটিল দুর্ঘটনা তদন্ত সাপেক্ষে ধারা নির্ধারণ এবং তদন্ত কমিটিতে শ্রমিক প্রতিনিধি অন্তর্ভুক্ত করা।

শ্রমিক নেতারা জানিয়েছেন, তাদের এই দাবি মানা না হলে পরবর্তীতে তারা অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের আহ্বান করবেন।


আবহাওয়া

সিলেট
26°

অ্যাপস

সামাজিক নেটওয়ার্ক

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি