সন্ধ্যা ৭:৩৯,   সোমবার,   ১৪ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং,   ২৯শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ,   ১৪ই সফর, ১৪৪১ হিজরী
 

বরিশাল নৌবন্দর বাস টার্মিনালে যাত্রীর ঢল

নিউজ ডেস্ক:
ঈদুল আযহা শেষে শনিবার বরিশাল নদী বন্দরে সর্বাধিক ভিড় ছিল কর্মস্থলমুখী মানুষের। দিনের আলো ফুটতেই নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকায় দেখা যায় ব্যাপক ভিড়। ঈদ উদযাপন শেষে কর্মস্থলমুখী মানুষের পদচারণায় বরিশালের নৌবন্দর ও বাস টার্মিনাল এভাবেই মুখর থাকছে। ঈদের ছুটি আগেভাগেই শেষ হলেও রবিবার সরকারি-বেসরকারি অফিস ধরতে শনিবার উপচে পড়া ভিড় ছিল যাত্রীদের। শনিবার দিনে-রাতে মিলিয়ে ২৪টি লঞ্চ-স্টিমার টইটুম্বুর যাত্রী নিয়ে ছেড়ে গেছে ঢাকার উদ্দেশ্যে।

ঈদের পরে নতুন সপ্তাহে প্রথম কর্মদিবস শুরু হবে আজ রোববার। ঈদ, জাতীয় শোক দিবস ও সাপ্তাহিক ছুটিসহ এবার টানা ৯ দিন ছুটি উপভোগ করেছেন অনেক কর্মজীবী। তবে যাদের ছুটি কম, তারা গত বৃহস্পতিবার থেকেই কর্মস্থলমুখী হয়েছেন।

বিআইডব্লিউটিএ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ১০টি লঞ্চ বরিশাল থেকে ঢাকায় গেছে। শুক্রবার যাত্রীর চাপ আরও বেড়ে যাওয়ায় ঢাকার উদ্দেশে ছেড়েছে ১৭টি লঞ্চ। গতকাল শনিবার ২১টি লঞ্চ যাত্রী নিয়ে ঢাকায় গেছে। প্রতিটি লঞ্চে তিল ধারণের ঠাঁই ছিল না। প্রথম শ্রেণির কেবিন যাত্রীদের চলার পথও দখল করে নেন সাধারণ যাত্রীরা।

বরিশোল নদী বন্দর কর্মকর্তা আজমল হুদা সরকার মিঠু সরকার জানান, লঞ্চ যাত্রীদের জন্য বিগত ঈদের চেয়ে এবার নতুন দুটি বিলাসবহুল লঞ্চ সংযুক্ত করা হয়েছে। আর যাত্রীদের নিরাপত্তায় রয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এ কারণে এবারের ঈদুল আযহায় যাত্রীরা স্বাচ্ছন্দে বাড়ি ফিরেছেন এবং ছুটি শেষে কর্মস্থলে ফিরতে পারছেন বলে তিনি জানান।

কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে সবচেয়ে বেশি ভিড় দেখা গেছে বরিশাল-মাওয়া রুটের বাস কাউন্টারে। টিকিটের জন্য বিশাল লম্বা লাইন পড়েছে কাউন্টারের সামনে। একই অবস্থা পার্শ্ববর্তী বিআরটিসি বাস ডিপোতে। সেখানেও মাওয়া রুটের কাউন্টারে দীর্ঘ লাইন। কাদাপানির মধ্যে একাকার হয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট সংগ্রহ করতে হয় যাত্রীদের।


আবহাওয়া

সিলেট
27°

অ্যাপস

সামাজিক নেটওয়ার্ক

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি