সকাল ৭:০৭,   মঙ্গলবার,   ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং,   ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ,   ১৬ই মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী
 

‘সমুদ্রগামী জাহাজ থাকলে ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি যোগ করা সম্ভব’

নিউজ ডেস্ক:
বিদেশের সঙ্গে বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে সামুদ্রিক যোগাযোগে নিজেদের জাহাজ থাকলে প্রতিবছর জিডিপিতে (মোট আভ্যন্তরীণ উৎপাদন) ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি যোগ করা সম্ভব। পররাষ্ট্র সচিব (মেরিটাইম) মো. খুরশিদ আলম ঢাকায় অনুষ্ঠিত ইন্ডিয়ান ওশান রিম অ্যাসোসিয়েশনের মন্ত্রিপর্যায়ের সম্মেলন শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের এ তথ্য জানান।

পররাষ্ট্র সচিব (মেরিটাইম) মো. খুরশিদ আলম বলেন, ‘পৃথিবীব্যাপী প্রায় ২৫ ট্রিলিয়ন ডলারের সামুদ্রিক সম্পদ রয়েছে। যার মাত্র আড়াই ট্রিলিয়ন সম্পদ বিশ্ব আবিষ্কার করতে সক্ষম হয়েছে। বাকি সম্পদ এখনও অনাবিষ্কৃত। বাংলাদেশের ক্ষেত্রে গতবছর সবগুলো ক্ষেত্র মিলে ৯ দশমিক ৬ বিলিয়ন সামুদ্রিক সম্পদ আহরণ করা হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘গতবছর আমাদের বৈদেশিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রে ৮০ বিলিয়ন ডলারের আমদানি রফতানি হয়। বিদেশ থেকে পণ্য আনা এবং বিদেশে আমাদের পণ্য পাঠাতে গতবছর তিন হাজারেরও বেশি বিদেশি জাহাজ বাংলাদেশে পণ্য আনা-নেওয়া করেছে। বিদেশি জাহাজের ভাড়া বাবদ বাংলাদেশের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলোকে ৫ বিলিয়ন ডলার খরচ করতে হয়। অথচ বিদেশি জাহাজের পেছনে ব্যয় করা এই খরচের যদি অর্ধেক ভাগ বাঁচানো যেত, তবে তা আমাদের জিডিপিতে ১ শতাংশ প্রবৃদ্ধি যোগ হতো।’

তিনি আরও জানান, প্রতিবছর বিদেশের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক কর্মকাণ্ড ১৫ শতাংশ হারে বাড়ছে। অথচ সামুদ্রিক পরিবহনের ক্ষেত্রে নিজেদের জাহাজ বাড়ছে না। আমাদের মাত্র ৪৬টি জাহাজ আছে, যার মধ্যে পাঁচটা বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের।


আবহাওয়া

সিলেট
26°

অ্যাপস

সামাজিক নেটওয়ার্ক

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি