বিকাল ৩:১৬,   শনিবার,   ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং,   ৬ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ,   ২০শে মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী
 

সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা পিযুষকে থানায় হস্তান্তর, অস্ত্র ও মাদক আইনে মামলা

অনলাইন রিপোর্ট:
একটি বিদেশি রিভলবার সহ দুই রাউন্ড গুলি ও ৫ হাজার ৫৪০ পিস ইয়াবাসহ আটক সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি পিযুষ কান্তি দে এবং তার তিন সহযোগীকে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। বাকী তিনজন হলেন, বাপ্পা পাল, মন্টি রায় আর জুয়েল।

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকালে র‌্যাব-৯ তাকে অস্ত্র, গুলি ও মাদকসহ হস্তান্তর করে। আর এ ঘটনায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এরমধ্যে অস্ত্র আইনে একটি ও মাদকদ্রব্য আইনে আরেকটি মামলা করা হয় বলে জানিয়েছেন কোতোয়ালী থানার ওসি সেলিম মিঞা। তিনি বলেন, তাদের বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এসব মামলায় আজ তাদের আদালতে হাজির করা হবে।

এর আগে বুধবার রাত সাড়ে ৭ টার মির্জাজাঙ্গাল এলাকার পিযুষের আস্তানা ঘেরাও করে তাদের আটক করা হয়। সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক পিযুষ কান্তি দে’র বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি, মারধরসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। নগরীর জিন্দাবাজার-লামাবাজার সড়কের মির্জাজাঙ্গালে আস্তানা গড়ে তুলে নিজের কর্মীবাহিনীর মাধ্যমে এসব অপকর্ম করে বলে অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

এর আগে চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি আরো একবার পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হন সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক পিযুষ কান্তি দে।

এরপর ছাড়া পেয়ে ফের নানা কর্মকাণ্ডে নগরজুড়ে আলোচিত ছিলেন তিনি। এছাড়া সম্প্রতি নগরীর জিন্দাবাজারে তিন প্রবাসীকে মারধরের ঘটনাতেও তাকে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়। অবশেষে বুধবার ফের র‍্যাবের হাতে আটক হন আওয়ামী রাজনীতির বিতর্কিত এই নেতা।


আবহাওয়া

সিলেট
36°

অ্যাপস

সামাজিক নেটওয়ার্ক

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি