রাত ২:১২,   বুধবার,   ২০শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং,   ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ,   ২১শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী
 

১০ টাকায় শিশুদের মক্তব পড়াচ্ছেন বিধবা নারী

অনলাইন ডেস্ক:
ভোলার তজুমদ্দিনে মাসে জনপ্রতি ১০ টাকা বেতনে মক্তবে শিশুদের কোরআন শিক্ষা দিচ্ছেন এক বিধবা নারী। প্রায় ৩০ জন শিশু শিক্ষার্থীকে দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে জরাজীর্ণ একটি টিনের ঘরে নিয়মিত কোরআন শিক্ষা দিয়ে আসছেন ওই নারী। বর্তমানে মক্তবের ঘরটি জরাজীর্ণ হওয়ায় সামান্য বৃষ্টিতেই ভিজে একাকার হয় শিশুরা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, প্রায় ৪০ বছর আগে উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়নের মোল্লা গ্রামের লেদু করাতী বাড়ির দরজায় মরহুম আসলাম মুন্সী ধর্মীয় শিক্ষা দানের উদ্দেশ্যে শতাধিক শিশু নিয়ে মক্তবটি চালু করেন। সম্প্রতি এলাকাবাসীর উদাসীনতা ও আর্থিক সংকটের কারণে টিন শেডের ঘরটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়ে।

নির্ধারিত বেতন দেয়া সম্ভব না হওয়ায় নিয়মিত ধর্মীয় শিক্ষক নিয়োগ দেয়া যায়নি। মক্তবের ধারাবাহিকতা রক্ষা করে ৫ বছর আগে গ্রামের কোমলমতি শিশুদের কোরআন শিক্ষা দানের উদ্দেশ্যে পড়ানোর দায়িত্ব নেন বিধবা নারী নুরজাহান বেগম। মক্তবটি চালু রাখতে দরকার সরকারি ও স্থানীয় অনুদান। আর্থিক সংকটের কারণে বন্ধ হয়ে যেতে পারে মক্তবটি।

মক্তবের শিক্ষার্থী হাফসা, আবদুর রহিম, মালেকাসহ কয়েকেজন বলে, আমরা মাসে ১০ টাকা করে দেই। কেউ কেউ টাকা না দিয়েই মক্তবে পড়ে। একালাকার বাসিন্দা হানিফ ও নুরুল হক জানান, নিশানা স্বরুপ মক্তবটি দাঁড়িয়ে আছে। আর্থিক অনটনের কারণে প্রায় বন্ধ হওয়ার উপক্রম। শিশু শিক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখে স্থানীয় ও সরকারিভাবে মক্তবটিতে অনুদান প্রয়োজন।

মক্তবের শিক্ষিকা নুর জাহান বেগম জানান, যখন যে যা দেয় তাই নিই। তবুও ধর্মীয় শিক্ষা চালু রেখে শিশুদের গড়ে তোলার চেষ্টা করছি।


আবহাওয়া

সিলেট
18°

অ্যাপস

সামাজিক নেটওয়ার্ক

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি